সোমবার, ২৫ জানুয়ারী ২০২১ | ১২ মাঘ ১৪২৭

শাল্লায় চেয়রাম্যান পদে বিজয়ী আল আমিন



জেলার শাল্লা উপজেলায় স্থগিত হওয়া ৩ কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার (১৭ এপ্রিল) সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত বিরতহীন ভাবে একটানা ভোট গ্রহণ চলে। জাল ভোট প্রদান সহ বিভিন্ন অনিয়মের কারণে ১০ মার্চ অনুষ্ঠিত নির্বাচনে শাল্লা উপজেলায় ৩টি কেন্দ্রে নির্বাচন কমিশনের নির্দেশনায় ভোট স্থগিত করেন রিটার্নিং কর্মকর্তা। এতে শাল্লা উপজেলায় তিন পদের নির্বাচন স্থগিত রাখা হয়।
স্থগিত হওয়া তিন কেন্দ্রে আজ ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। আগের তিন কেন্দ্র বাদে উপজেলা চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ প্রার্থী আব্দুল্লাহ আল আমিন চৌধুরী পেয়ে ছিলেন ২৪ হাজার ৯শ ৮০ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দী আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী অবনী মোহন দাস পেয়ে ছিলেন ১৯ হাজার ৩শ ৩ ভোট।
নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার পর আব্দুল্লাহ আল আমিন চৌধুরী ২৬ হাজার ৬শ ৫৯ ভোট পেয়ে বেসরকারি ভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দী আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী অবনী মোহন দাস পেয়েছেন ১৯ হাজার ৪শ ৯৫ ভোট।
ভাইস চেয়ারম্যান পদে দিপু রঞ্জন দাস টিউবওয়েল প্রতীকে ১০ হাজার ৪শ ১৪ ভোট পেয়ে বেসরকারি ভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী উড়োজাহাজ প্রতিকে পঙ্কজ কুমার চৌধুরী পেয়েছেন ৭হাজার ২শ ৭৬ ভোট।
মহিলা ভাইস ভাইস চেয়ারম্যান পদে অমিতা রাণী দাস প্রজাপতি প্রতিকে ১৫ হাজার ৯শ ৫৫ ভোট পেয়ে বেসরকারি ভাবে নির্বাচিত হয়েছেন তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী অলি বেগম ফুটবল প্রতিকে ৮ হাজার ৯শ ৩৭ ভোট পেয়ে পেয়েছেন।
রিটার্নিং কর্মকর্তা অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মো. শরীফুল ইসলাম এ ফলাফলের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।