সোমবার, ২৫ জানুয়ারী ২০২১ | ১২ মাঘ ১৪২৭

সাংবাদিক জয়ন্ত সেনের উপর হামলা: মিহির ও রানা জেল হাজতে



সন্ত্রাসী হামলায় আহত সাংবাদিক জয়ন্ত সেনের উপর হামলাকারীদের অন্যতম আসামি মিহির রায় ও রানা রায়কে জেল হাজতে পাঠিয়েছেন আদালত।

সোমবার (১৩ মে)  দুপুরে শাল্লা জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে আগাম জামিন নিতে এলে আদালত তাদের জামিন নামঞ্জুর করে জেল হাজতে প্রেরণের নির্দেশ দেন আদালতের বিচারক শুভদ্বীপ পাল। এই মামলার প্রধান আসামি গোপাল রায়কে এর আগে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। বর্তমানে সে জেল হাজতে আছে। অপর আসামি রিংকু রায় এখনো পলাতক আছে।
উল্লেখ্য গত ৭ মে সাংবাদিক ও হাওর বাঁচাও সুনামগঞ্জ বাঁচাও আন্দোলনের শাল্লা উপজেলার সাধারণ সম্পাদক জয়ন্ত সেন সুনামগঞ্জে ফেরার পথে আনন্দপুর গ্রামের গোপাল রায় ও রিংকু রায়ের নেতৃত্বে দষ্কৃতিকারীরা সংবাদ প্রকাশের জের ধরে তার উপর অতর্কিত হামলা চালায়। এতে তার পা, গলা, কাঁধ, পিঠ, পেঠসহ শরিরের বিভিন্ন অঙ্গ রক্তাক্ত হয়। বর্তমানেও তিনি সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে সার্জারি বিভাগে কর্মরত আছেন। এ ঘটনায় গত শুক্রবার সাংবাদিক জয়ন্ত সেন একই গ্রামের গোপাল রায়, রিংকু রায়, ইন্দ্রজিৎ রায়, মিহির রায়, রানা রায় এবং বাবলু রায়সহ অজ্ঞাতনামা আরো ২-৩ জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন। সোমবার আসামি রানা রায়, মিহির রায় ও বাবলু রায় জামিন নিতে এলে আদালত মিহির ও রানার জামিন নামঞ্জুর করে জেল হাজতে প্রেরণ করেছেন।
বাদী পক্ষে মামলা পরিচালনা করেন এডভোকেট বজলুল মজিদ চৌধুরী খসরু। তাকে সহযোগিতা করেন জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি এডভোকেট চান মিয়া, এডভোকেট আসাদুল্লাহ সরকার, এডভোকেট আজাদুল ইসলাম রতন, এডভোকেট সবিতা চক্রবর্তী, এডভোকেট নাসিরুল হক আফিন্দি, এডভোকেট এনাম আহমেদ, এডভোকেট আনোয়ার হোসেন প্রমুখ।