মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর ২০২০ | ১০ অগ্রহায়ণ ১৪২৭

সুনামগঞ্জ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় অনুমোদন হওয়ায় দক্ষিণ সুনামগঞ্জে পরিকল্পনামন্ত্রীকে সংবর্ধনা



সুনামগঞ্জ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় মন্ত্রী সভায় অনুমোদন লাভ করায় জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে আনন্দে ভাসছেন সুনামগঞ্জবাসী। রবিবার (৫ জানুয়ারি) প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নানকে অভিনন্দন জানিয়ে আনন্দ শোভা যাত্রায় অংশ নিতে সকাল থেকে বৃষ্টি আর শীত উপেক্ষা করে জেলার বিভিন্ন উপজেলা থেকে হাজার হাজার মানুষ রাস্তায় সমবেত হতে থাকেন। এরই অংশ হিসাবে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নানকে সংবর্ধনা দিয়ে সুনামগঞ্জে নিয়ে আসার জন্য দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার আওয়ামী লীগ যুবলীগ, কৃষকলীগ, শ্রমিক লীগ, ছাত্রলীগের নেতা কর্মীরা সকাল থেকেই সিলেট-সুনামগঞ্জ সড়কের বিভিন্ন পয়েন্টে সমবেত হতে থাকেন।

সকাল সাড়ে ১০টায় উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আতদাউর রহমান, পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান এমপির ব্যক্তিগত সহকারী হাসনাত হোসেন এর নেতৃত্বে, উপজেলা আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতা কর্মীরা উপজেলার পাগলা পয়েন্ট, বড়কাপন পয়েন্ট, ডাবর পয়েন্ট এর পরিকল্পনামন্ত্রীকে সংর্বধনা প্রদান করেন। অন্যদিকে উপজেলা কৃষকলীগের পক্ষে কৃষকলীগের আহŸায়ক ফয়জুর রহমান, সিনিয়র যুগ্ম-আহŸায়ক আব্দুল গনি ভান্ডারী, যুগ্ম-আহŸায়ক ফরিদ আহমদ, আমির উদ্দিন ও সদস্য মুরতাজ আহমদের নেতৃত্বে দুইশতাধিক মোটর সাইকেল শোভা যাত্রা বের করে উপজেলার দামোধরতপী পয়েন্ট থেকে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান এমপিকে সংর্বধনা দিয়ে মোটর সাইকেল শোভাযাত্রার মধ্যদিয়ে নিয়ে আসেন।

এদিকে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান সকাল ১১টায় পাগলা বাজারে এসে পৌছলে পাগলা সরকারী মডেল হাইস্কুল এন্ড কলেজ কর্তৃপক্ষ ও বিভিন্ন রাজনৈতিক ব্যক্তিবর্গ পৃথকভাবে ফুল দিয়ে পরিকল্পনামন্ত্রীকে এ সংবর্ধনা জানান।
সংবর্ধনাকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নানকে অভিনন্দন জানিয়ে আনন্দ মিছিল করা হয়। এছাড়াও পাগলা সরকারী হাইস্কুল এন্ড কলেজের পক্ষ থেকে পরিকল্পনামন্ত্রীর উদ্দেশে একটি মানপত্র রচনা করা হয়।
সংবর্ধনাকালে উপস্থিত ছিলেন, সুনামগঞ্জ-২ আসনের সাংসদ জয়া সেনগুপ্ত, দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার চেয়ারম্যান ফারুক আহমদ, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জেবুন্নাহার শাম্মী, পশ্চিম পাগলা ইউপির চেয়ারম্যান নুরুল হক, পাগলা সরকারী মডেল হাইস্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ রমিজ উদ্দিন, সহকারী শিক্ষক দিলীপ কুমার তালুকদার, সহকারী শিক্ষক শাহজাহান মিয়া, সহকারী শিক্ষক সাইফুল ইসলাম।
এছাড়াও আনন্দ শোভাযাত্রায় বিভিন্ন রাজনৈতিক,সামাজিক ব্যক্তিবর্গ, স্থানীয় ব্যবসায়ী, শিক্ষার্থীবৃন্দসহ স্থানীয় সাধারণ মানুষ অংশ নেন।

সকাল সাড়ে ১১টায় পরিকল্পনামন্ত্রী সুনামগঞ্জ শহরে গিয়ে পৌছলে সেখানে হাজার হাজার মানুষ সুনামগঞ্জ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বপ্নদ্রষ্টা পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান কে মানুষ মিছিল সহকারে শহরে বরণ করে নেয়া হয়। পরে তাঁর নেতৃত্বে কালেক্টরেট প্রাঙ্গন থেকে হাজার হাজার মানুষের ¯ে¬াগানে সুনামগঞ্জের আকাশ বাতাস আনন্দ ধ্বনিতে মুখরিত হয়ে উঠতে থাকে। আনন্দ শোভা যাত্রাটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে জেলা স্টেডিয়ামে গিয়ে আনন্দ সমাবেশে মিলিত হয়।

উল্লেখ্য: সুনামগঞ্জ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় মন্ত্রী সভায় অনুমোদন লাভ করায় সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে রবিবার (৫ জানুয়ারি) প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নানকে অভিনন্দন জানিয়ে আনন্দ শোভা যাত্রার আয়োজন করা হয়। অভিনন্দন মিছিলে অংশ নিতে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান রোববার সকালে ঢাকা থেকে বিমানের একটি ফ্লাইটে সিলেট এমএজি ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এসে পৌছান। পরে সকাল সাড়ে ৯টায় সিলেট বিমান বন্দর থেকে একটি বিশাল গাড়ী বহড়ে করে সুনামগঞ্জে আনন্দ শোভা যাত্রার উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু করেন।